আত্মউন্নয়ন

জীবনে ব্যর্থতার হওয়ার কিছু কারণ

জীবনে ব্যর্থতার হওয়ার কারণ

আপনি হয়তো কোন কাজগুলো করা উচিত তা নিয়ে অনেক অনেক লেখা পড়েছেন কিংবা ইউটিউবে ভিডিও দেখেছেন। কিন্তু আজ সম্পূর্ণ আলাদা একটা লিস্ট আপনার জন্য অপেক্ষা করছে এখানে। এখানে এমন সব কাজের অথবা এক্টিভিটির কথা বলবো যেগুলো কখনোই আপনার করা উচিত না। যদিও আমি একটু মজার ছলে বলার চেষ্টা করবো তাও এসব কিন্তু আসলেই করা উচিত না। চলুন ভূমিকাপর্ব শেষ করে এখন মূল পর্বে যাই-

Photo by James Orr on Unsplash

১. কখনো কারো পেছনে সমালোচনা করবেন না।

কারণ:
• সময় ও এনার্জি লস
• রিলেশন নষ্ট হতে পারে
• ছোট মানসিকতার পরিচায়ক

২. অযথা হিংসা করবেন না।

কারণ:
• হিংসুটে মানুষ সবার অপছন্দের
• হিংসা করে আপনার কিছু লাভ নেই
• হিংসা না করে উৎসাহ দিলে ভালো হয়

৩. পাহাড়ের চূড়ায় উঠে হিরোগিরি দেখাবেন না।

কারণ:
• পা পিছলে পড়ে মরে যাবেন
• না মরলেও মারাত্মক আহত হবেন….. তারপর মরবেন

৪. ফেসবুকে নিজের উদ্ভট ছবি কিংবা স্ট্যাটাস দিবেন না।

কারণ:
• মানুষ তীর্যক মন্তব্য করবে
• গণহারে আনফ্রেন্ড করবে
• আপনার ভবিষ্যৎ প্রজন্ম এসব নিয়ে লজ্জিত হবে

৫. ছাদের উপর থেকে লাফ দিবেন না।

কারণ:
• আপনি উড়তে পারেন না
• মরে যেতে পারেন
• পাহাড়ের চূড়া থেকে পড়ে যাওয়ার মতো হবে

৬. ইন্টারনেটে দেখা সব কিছু বিশ্বাস করবেন না।

কারণ:
• ইন্টারনেটে থাকা সব তথ্য সঠিক নয়
• আপনি জঙ্গি কিংবা উগ্রবাদী হয়ে যেতে পারেন
• শুধু শুধু উচ্চ রক্তচাপ বাড়াবেন

৭. এমন কিছু খাবেন না যেটাতে আপনি এলার্জিক।

কারণ:
• বিশ্বাস করুন এটা মোটেই আপনার জন্য সুখকর হবে না
• একটা উপভোগ্য ভালো দিন নষ্ট হবে
• এলার্জি মোটেই কমবে না

৮. অযথা সময় নষ্ট করবেন না।

কারণ:
• সময় গেলে সাধন হবে না
• সময় ও স্রোত কারো জন্য বসে থাকে না
• উপরের দুটি কারণ কি যথেষ্ট না!

৯. দুঃখ ভুলতে নেশার পথে যাবেন না।

কারণ:
• নেশা আপনার জন্য আরো বেশি দুঃখজনক হবে
• পরে এই নেশা নিয়েই ডিপ্রেশনে চলে যাবেন
• আশেপাশের প্রিয়জনদের হারাবেন

১০. প্রাক্তন না চাইলে তার সাথে যোগাযোগ করবেন না।

কারণ:
• নিজের আত্মসম্মান বোধ হারাবেন
• পুনরায় রিজেক্টেড হয়ে নিজের কষ্ট বাড়াবেন
• বন্ধুবান্ধবদের কাছে নিজের মানসম্মান হারাবেন

১১. বাবা-মায়ের সাথে কখনো সামাজিক যোগাযোগ বন্ধ করবেন না।

কারণ:
• আপনার বাবা মা আপনাকে আপনার চেয়েও বেশি বোঝে
• তারা খুব ভালো শ্রোতা হবেন
• তাদের কাছ থেকেই সবচেয়ে ভালো উপদেশটা পাবেন

১২. জুয়া খেলবেন না।

কারণ:
• দিনশেষে জুয়ার হাউজই লাভবান হয়
• এই খেলায় আপনাকে হারতেই হবে
• সব হারাতে হবে

১৩. অন্যের সক্ষমতার সাথে নিজের কিংবা নিজের সন্তানের তুলনা করবেন না।

কারণ:
• সবাই আলাদা, কেউ কারো মতো না
• নিজের সন্তানের আত্মবিশ্বাস নষ্ট হবে
• তার কাছে নিজের অবস্থান হারাবেন

১৪. কোনো ধর্মান্ধের সাথে ধর্মীয় বিষয়ে অযথা তর্ক করবেন না।

কারণ:
• আপনি ওদের সাথে কখনোই জিতবেন না
• তারা আপনার নামে কুৎসা রটাবে
• এর চাইতে বরং বিরিয়ানি এনজয় করুন

১৫. জীবনের লক্ষ্য হিসেবে বিশাল কিছু নির্ধারণ করবেন না।

কারণ:
• স্বল্পতার সুখ থেকে বঞ্চিত হবেন
• বড় লক্ষ্য থাকা জীবন নিয়ে জুয়া খেলার মতো
• অতিরিক্ত চাপে মানসিক স্বাস্থ্য ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে

উপরোক্ত কাজগুলো ছাড়াও আরো অনেক কাজ আছে যেগুলো আপনার মোটেই করা উচিত নয়। আপাতত এগুলো নিয়ে আলোচনার এখানেই সমাপ্তি। ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Bengali BN English EN Hindi HI